অন্তর্যামী

ঘুমের ঘোরে শুনতে পেলাম কড়া নাড়ার শব্দ

এত রাত্তিরে কে এলো আবার

দরজা খুলে দেখি, এক দিব্যমান প্রকাশ

আমার দিকে তাকিয়ে, মৃদু হেঁসে বলছেন, “আমি ঈশ্বর”

প্রায় ভোর রাত, ঘুমে ভরা চোখ

মাথা কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছে

কি করব, কি বলব, কিছুই বুঝতে পারছিনা

বলছেন "আমি ঈশ্বর", মেনে নেবো কি

আমার দ্বিধা দেখে, ঈশ্বর বিচলিত হলেন না, বললেন

“রকমারি লোক , পথ প্রদর্শকেরও অভাব নেই

বেচে নিতে হবে, কে ঠিক আর কে বেঠিক”

ঈশ্বর যে ধাঁধায় ফেললেন

লুকিয়ে থাকি, না সামনে এসে দাঁড়াই,

অজান্তে, ঈশ্বর কে আরেকটা নির্বোধ প্রশ্ন করে ফেললাম

কেন রচনা করলেন, শিষ্টের পাশাপাশি দুষ্টের

ঈশ্বরের রেগে যাবার কথা, রাগলেন না, বললেন

“ কোনো সংবেদনশীল ব্যক্তি রাক্ষস তৌরি করেনা

সমস্যা তোমার, তোমাকেই খুঁজে বের করতে হবে

তোমার সমস্যার সমাধান

দোষ-স্বীকারোক্তি এক ধরণের শিল্প

পারদর্শী হতে হবে তোমাকে এই শিল্পে”

আমি কথার ফাঁকে জিজ্ঞেস করলাম

কে করেছেন আপনার রচনা ?

সৃষ্টিকর্তার রূপ ধারণ করে ঈশ্বর বললেন

“জানো বোধহয়, যোজনা করা, আর তাকে মূর্তরূপ দেওয়া, দুটি ভিন্ন জিনিস

আমার সৃষ্টির পূর্বে তোমাকে কল্পনা করতে হবে একটি আদর্শের”

আমি বললাম, আমাদের অভিধানে, আদর্শের বানান বদলায় নি

মানে বদলেছে, কিছু অনাদর্শ স্থান পেয়েছে

ঈশ্বর উত্সাহিত সুরে বললেন

“তোমাদের বুদ্ধি আছে, তাই তো তোমরা বিচারক”

জিজ্ঞেস করলাম, আপনি তো সৃষ্টিকর্তা

আপনি তো জানেন, আপনার সৃষ্টি অসম্পূর্ণ

সৃষ্টি কেন অসম্পূর্ন রাখলেন ?

ঈশ্বর জানালেন, “জেনে-শুনে ভুল করেছেন, বৈচিত্রের প্রয়োজনে

যদি স্থাপিত করতে চাই ঈশ্বরের অস্তিত্ব

ব্যর্থ হবে আমার চেষ্টা

বোঝালেন, অসীম কে কি আবদ্ধ করা যায়না

ভাষায় বা ভাবনায়

তাঁকে জানতে গেলে, নিজেকে হারাতে হবে

প্রস্তুত আছি কি আমি, নিজেকে হারাতে

এও বললেন, “ পরিপূরক আমরা একে অপরের

তুমি নিরাপদ, যতদিন আমি নিরাপদ”

কেন বলুন তো, সহজে ধরা যায় না আপনাকে

হেঁসে ঈশ্বর বললেন, “যেখানে-সেখানে খুঁজে বেড়াও, তাই পাওনা খুঁজে

যদি ক্ষমতা থাকে দেখার, দেখা পাবে আমার

আমি সরল রেখা, নির্ভর করছে তুমি আমাকে গ্রহন করতে চাও

সরল রেখা রূপে, না ত্রিভুজের আকারে”

আমি মন্ত্রমুগ্ধ ঈশ্বরের আচারে ব্যবহারে

ভোর হব-হব, আমার উন্মুক্ত চোখে ঘুম নেই

বুঝতে পারছি, ঈশ্বর কে কাছে পেতে গেলে, চাই মনের পবিত্রতা

জানতে গেলে, চাই জানার ক্ষমতা

ঈশ্বর কে বললাম, আবার দেখা হবে আশা করি

ঈশ্বর জানালেন, “ঈশ্বর যদি কৃপা করেন, নিশ্চই দেখা হবে”