একটা জ্যান্ত শহরের মৃত্যুর রটনা অনেক বার করা হয়েছে

একটা জ্যান্ত শহর প্রানোচ্ছল দেহের মতো

তার নিজস্ব মন থাকে

থাকে কর্মপদ্ধতি আর অনুভূতি

থাকে নিজস্ব সৌন্দর্য আর গন্ধ

থাকে নিজস্ব হৃদয় ও মস্তিস্ক

থাকে নিজস্ব ডিএনএ

থাকে সে সচেতন

তার পারিপার্শ্বিক সুস্থ পরিবেশ বজায় রাখতে

মানুষের সঙ্গে মানুষের সম্পর্কে তার বিশেষ উৎসাহ

গর্বিত সে নিজের উত্তরাধিকারে

তার আবেগে তাকে চেনা যায়

চেনা যায় তার জীবনের প্রতি উৎসাহে

রুচির পরিচয়ে

একটা জ্যান্ত শহর অসুস্থবোধ করে

যখন সে চলার পথ খুঁজে পায়না

যখন সে গোলযোগের চাপে নাজেহাল হয় পড়ে

একটা জ্যান্ত শহর জানে

স্বার্থপর নাহোলে জ্যান্ত থাকা যায়না

সে বোঝে প্রতিযোগিতার অপরিহার্যতা

সে পরিবর্তনের পক্ষে, তবে জানে

কতটা পরিবর্তন পরিবর্তনের দরকার, উন্নয়ন ঘটাতে

একটা কর্মমুখর প্রানোচ্ছল শহর

ধ্বংসর গঠনমূলক দর্শনে বিশ্বাস করে

সে জানে তার বেঁচে থাকা

বা অস্তিত্বের অধিকার চিরন্তন নয়

একটা জ্যান্ত শহরের পরিচয় পাওয়া যায়

তার ফুটপাথে, দোকানে, কাজকর্মে

খাবারের দোকানে, নাটকে, গানে, সিনেমায়

সামাজিক সম্পর্কের আদান প্রদানে

সুখ স্বাচ্ছন্দে, ব্যক্তি স্বাধীনতায়

সাংস্কৃতিক চেতনায়, গতিশীল ধারাবাহিকতায়

সাধারণ মানুষের জীবনে

একটা জ্যান্ত শহরকে

যায়না দেখানো মৃত্যুর ভয়

এবার আপনি ঠিক করুন

আপনার শহর জীবিত না মৃত